আজ শুক্রবার, ২৫ জুন, ২০২১ || ১১ আষাঢ় ১৪২৮ বঙ্গাব্দ শুক্রবার, ১০:০৩ পূর্বাহ্ন
মঙ্গলবার, ১১ মে, ২০২১   |   sonalisandwip.com
অস্ট্রেলিয়ায় সন্দ্বীপবাসীর প্রথম সংগঠন ‘সন্দ্বীপ এসোসিয়েশন অষ্ট্রেলিয়া'র আত্মপ্রকাশ

বাংলাদেশের মূল ভুখন্ড থেকে বিচ্ছিন্ন চট্টগ্রাম জেলার অন্তর্গত দ্বীপ থানা সন্দ্বীপ ৫২০ বর্গমাইল থেকে মেঘনার করাল থাবায় ভেঙ্গে ভেঙ্গে আজ ষাট বর্গমাইল, মতান্তরে আশি বর্গমাইল অবশিষ্ট আছে। দ্বীপে প্রায়ই চার লক্ষের কাছাকাছি মানুষের বাস।  

মৌসুমী বাতাস, মেঘনার রোষানল এবং যেকোন প্রাকৃতিক বিপর্যয়কে দ্বীপের মানুষ থোড়াই আমলে এনেছে বরং প্রতিটি বিপর্যয়কে জয় করে দ্বীপবাসী ঘুরে দাঁড়িয়েছে।  শিক্ষায়, সামাজিকতায়, সমৃদ্ধির শিখরে পৌঁছানোর প্রচেষ্টা তাদের মাঝে ছিল অধম্য! 

দ্বীপবাসী জীবন জীবিকার তাগিদে যেখানেই গিয়েছে, সেখানেই নিজেদের স্বতন্ত্র এক পরিচয় তৈরী করেছে। যার ফসল পৃথিবীর প্রায়ই সব দেশেই "সন্দ্বীপ এসোসিয়েশন" নিয়ে তারা কাজ করেছে। বাদ ছিল শুধু অষ্ট্রেলিয়া! এবার সেই অস্ট্রেলিয়ায়ও দ্বীপের পতাকা উত্তেলিত হলো কর্মবীর, সাহসি এবং প্রাণবন্ত একদল তরুণ দিয়ে।  যারা সন্দ্বীপকে শুধু ভালই বাসেনা, লালন করে তাদের জীবনের পরতে পরতে।  

একটি গনতান্ত্রিক নির্বাচন প্রক্রিয়ার মাধ্যমে "কাইয়ুম-ফসি-সুমন" পরিষদ পূর্ণাঙ্গ প্যানেলে বিজয়ী হয়েছে। যার মধ্য দিয়ে অস্ট্রেলিয়ায় সর্বপ্রথম কোন সন্দ্বীপের সংগঠন আত্মপ্রকাশ করলো। 

ছোট্ট এই কমিউনিটি অঙ্গীকারবদ্ধ যে কোন মানবিক কর্মকান্ডে অষ্ট্রেলিয়া এবং সন্দ্বীপে তারা সন্দ্বীপিদেরকে নিয়ে একযোগে কাজ করবে ইনশাআল্লাহ। 

সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি শেখ মোহাম্মদ আবদুল কাইয়ুম এর সাথে এই প্রতিবেদকের আলাপ হলে তিনি জানান অচিরেই নির্বাহী কমিটির সভা ডেকে আগামি পরিকল্পনা ঘোষনা করা হবে। সাথে সাথে সমস্ত অস্ট্রেলিয়ায় ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা সন্দ্বীপিদের একই প্লাটফর্মে একত্রিত করার জন্য কমিটির একটি চুড়ান্ত পরিকল্পনা বাস্তবায়নে তারা সবার আগে কাজ শুরু করবে। 

"সন্দ্বীপ এসোসিয়েশন অষ্ট্রেলিয়া" অষ্ট্রেলিয়ান সন্দ্বীপিসহ সারা পৃথিবীর সকল সন্দ্বীপিদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন যেসব সামাজিক সংগঠন, ব্যক্তি এবং দেশে-বিদেশে সন্দ্বীপ এসোসিয়েশনের নেতৃবৃন্দকে যারা তাদেরকে অভিনন্দিত করেছেন এবং করে যাচ্ছেন।