আজ রবিবার, ২১ জুলাই, ২০২৪ || ৫ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ রবিবার, ১২:২৬ পূর্বাহ্ন
রবিবার, ২৮ এপ্রিল, ২০২৪   |   sonalisandwip.com
--

আন্তর্জাতিক ফৌজদারি আদালতের (আইসিসি) গ্রেফতারি পরোয়ানা ঠেকানোর জন্য যুক্তরাষ্ট্র সর্বাত্মক কূটনৈতিক চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। আইসিসি ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু এবং অন্যান্য ইসরাইলি কর্মকর্তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করতে যাচ্ছে বলে বেশ কয়েকটি ইসরাইলি মিডিয়ার খবরে বলা হয়েছে। নিউজ সাইট ওয়ালায় বিশ্লেষক বেন কাসপিট লিখেছেন, নেতানিয়াহু তার বিরুদ্ধে হেগস্থ বিশ্ব আদালতের গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির আশঙ্কায় 'অস্বাভাবিক চাপে' রয়েছেন।

নেতানিয়াহু এবং অন্যান্য ইসরাইলি নেতার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির অর্থ হলো ইসরাইলের আন্তর্জাতিক সুনামে বড় ধরনের আঘাত। কাসপিট লিখেছেন, গ্রেফতারি পরোয়ানা প্রতিরোধে নেতানিহুয়া 'বিরতিহীনভাবে টেলিফোনে চেষ্টা করে' যাচ্ছেন। বিশেষ করে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন প্রশাসনের সাথে তিনি সর্বক্ষণ যোগাযোগ রাখছেন। হারেৎসের বিশ্লেষক অ্যামোস হারেল লিখেছেন, ইসরাইলি সরকার এই ধারণা নিয়ে কাজ করছে যে আইসিসির প্রসিকিউটর করির খান চলতি সপ্তাহেই নেতানিয়াহু, প্রতিরক্ষামন্ত্রী ইয়োভ গ্যালান্ট এবং আইডিএফ প্রধানের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করতে পারেন।

হারেল জানিয়ছেন, যুক্তরাষ্ট্র ইতোমধ্যেই গ্রেফতারি পরোয়ানা ঠেকানোর জন্য নিয়োজিত হয়েছে। উল্লেখ্য, ইসরাইলের মতো যুক্তরাষ্ট্রও আইসিসির রোম চুক্তিতে সই করেনি। উল্লেখ্য, ১২৪টি দেশ এই চুক্তিতে সই করেছে। যুদ্ধের ব্যাপারে নেতানিয়াহুর সর্বশেষ সরকারি বিবৃতিতে দাবি করেছেন যে আইসিসির আসন্ন সিদ্ধান্ত 'বিপজ্জনক নজির' সৃষ্টি করতে পারে। তিনি শুক্রবার বলেন, 'আমরা নিজেদের রক্ষা করা থেকে কখনো বিরত থাকব না। হেগ আদালতের সিদ্ধান্ত ইসরাইলি পদক্ষেপের ওপর কোনো প্রভাব ফেলবে না। সূত্র : টাইমস অব ইসরাইল